রবিবার, ১৫ মে ২০২২, ০৯:২৬ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম:
মুকসুদপুরে কম্বাইন হারভেষ্টারের মাধ্যমে বোরো ধান কর্তণ উদ্বোধন জলিরপাড়ে গৃহপরিচারিকাকে ধর্ষনের অভিযোগ গ্রাম্য চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ।। সালথায় ফের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ : নিহত-১ মুকসুদপুরে আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা মুকসুদপুর পৌর নির্বাচনে আ.লীগের দলীয় মনোনয়ন ফরম বিতরণ নগরকান্দায় ইয়াবা সম্রাট এখলাছ গ্রেফতার ঈদ উপলক্ষে মুকসুদপুর সদর ঈদগাহ কমিটির ব্যাপক প্রস্তুতি মুকসুদপুরে ৫শ বীর মুক্তিযোদ্ধার মাঝে অগ্রণী ব্যাংক পরিচালকের ঈদ উপহার বিতরণ ফরিদপুরের দুই উপজেলায় সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ১৫ মুকসুদপুরে স্ত্রীর পরকীয়ার জেরে স্বামীর আত্মহত্যা পরিবারের দাবি পরিকল্পিত হত্যা
নগরকান্দায় কুমার নদ খনন প্রকল্প, ১০ টি বসত বাড়ী নদী গর্ভে বিলিন

নগরকান্দায় কুমার নদ খনন প্রকল্প, ১০ টি বসত বাড়ী নদী গর্ভে বিলিন

নগরকান্দা থেকে বাদশাহ মিয়াঃ

কুমার নদ খননের পর নদের পাড় ভেঙ্গে পড়তে শুরু করেছে। ইতি মধ্যে ফরিদপুরের নগরকান্দায় অন্তত ১০ টি বসত বাড়ী নদী গর্ভে বিলিন হয়েছে। এছাড়াও নগরকান্দা সরকারি এম এন একাডেমীর ভবন, থানা ভবন ও বাজারের কেন্দ্রীয় কালি মন্দির ভবন সহ পৌর বাজার এখন ঝুঁকিত রয়েছে।

জানাগেছে, ফরিদপুর থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত ৭৫ কিলোমিটার কুমার নদের পুনঃখননের কাজ চলছে। কাজটি বাংলাদশ নৌবাহিনীর তত্বাবধানে বেঙ্গল গ্রুপ বাস্তবায়ন করছে। এই নদী পুনঃখননের ফলে নদীর পাড়ের কিছু কিছু এলাকায় ধস এবং ফাটল দেখা দিয়েছে। ১৭ জানুয়ারী (সামবার) রাতে হঠাৎ দুমড়ে মুচড়ে পড়ে পৌর এলাকার গাংজগদিয়া গ্রামের নদীর পাড়ের গঙ্গা মন্দির সহ ৭/৮ টি বসত বাড়ী। নদী থেকে প্রায় ৫০ মিটার দূরত্ব এলাকা নিয়ে ধসে পড়েছে। এত আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে নদীর পাড়ের বাসিন্দারা।

কয়েকদিন আগে একই ভাবে উপজেলার পাঁচকাইচাইল এলাকায় নদীর পাড়ে বসবাসরত আশরাফ মাতুবর ও সেলিম ব্যাপারীর বসত বাড়ী ভেঙ্গে নদীর গর্ভে বিলীন হয়েছে। এছাড়াও নগরকান্দা সরকারী এম এন একাডেমীর নব নির্মিত ভবন, থানার নব নির্মিত ভবন, বাজারর কেন্দ্রীয় কালী মন্দিরের ভবন, একাধিক আবাসিক ভবন সহ পৌর বাজারের একাংশ ঝুঁকিতে রয়েছে। এলাকায় বড় ধরনের ফাটল দেখা দিয়েছে যা প্রায় ৬/৭ ফুট ডেবে গেছে। নদীর পাড়ে বসবাসরত ওই এলাকার বাসিন্দারা তীব্র্র ভাঙ্গন আতংকের মধ্যে দিয়ে দিন রাত পার করছেন।

ক্ষতিগ্রস্ত উজ্জল মালা বলেন, কয়েকদিন যাবৎ একটু ফাটল দেখা গিয়াছিল। সোমবার রাত সাড় ৭ টার দিক হুড়মুড় শব্দে ঘর থেকে বেরিয় দেখি আমার পাশের ঘর ভেঙ্গে নদীত পড়ে গেছে। পরিবারের লোকজন নিয়ে ঘরের বাহিরে আসি। এমন সময় আমার একতলা ভবনটিও চোখর সামনে ভেঙ্গে নদীত পড়ে।

ঘটনার সংবাদ পেয়ে রাতেই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেতী প্রু ও সহকারী কমিশনার ভূমি এন, এম, আব্দুল্লাহ আল মামুন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এলাকাবাসি অভিযাগ করে বলেন, নদী খনন করার নামে এরা বালির ব্যাবসা করেছেন। গভীর করে নদী খনন করে বালি তুলে নিছে এ কারনে নদীর পাড় ভেঙ্গে পড়ছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেতী প্রু বলেন, নদীর পাড়ে ফাটল হওয়ায় আমি উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট লিখিত ভাবে জানিয়েছি। জেলা সমন্নয় সভায় এ ব্যাপারে জানানো হয়েছে। নদীর পাড় রক্ষার্থে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

এ বিষয় ফরিদপুর পানি উনয়ন বার্ডের নির্বাহী প্রোকৌশলী পার্থ প্রতিম সাহা জানান, ঘটনার সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে সরেজমিনে লোক পাঠিয়েছি। এটা সমাধানর চেষ্টা চলছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..




© All rights reserved 2018 Banglarnayan
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!