শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ১১:০৪ অপরাহ্ন

মুকসুদপুরে ২য় শ্রেণীর মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষনকারী ইসমাইল গ্রেপ্তার

মুকসুদপুরে ২য় শ্রেণীর মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষনকারী ইসমাইল গ্রেপ্তার

বাংলার নয়ন সংবাদঃ

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষনকারীর অভিযোগে ইসমাইল হোসাইনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করেছে থানা পুলিশ।
শুক্রবার (৯ ফেব্রয়ারী) সকালে তাকে গোপালগঞ্জ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। এর আগেরদিন রাতে মুকসুদপুর থানার এস আই মনির হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করেন।

গ্রেপ্তারের পরে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ধর্ষণের কথা শিকার করেছে বলে মুকসুদপুর থানার ওসি নিশ্চিত করেছেন।

ধর্ষনকারী ইসমাইল হোসেন বাঁশবাড়িয়া পরিজান বেগন বেগম মহিলা কওমী মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক। সে গোপালগঞ্জ সদর থানার চন্দ্রদিঘলীয়া গ্রামের এসএম ইয়ার আলী শিকদারের ছেলে।

মুকসুদপুর থানার ওসি মোহাম্মদ আশরাফুল আলম জানান, পরিজান বেগম মহিলা কওমী মাদ্রাসার ২য় শ্রেণীর শিক্ষার্থী ১০ বছরের শিশু ধর্ষিত হয়েছে। তাৎক্ষনিকভাবে আমরা মাদ্রাসার ৪ শিক্ষককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গ্রেপ্তার করি। পরে ভিকটিমের দেয়া তথ্য ও জিজ্ঞাসাবাদে মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক স্বীকার করেছে।

পরে তাকে গোপালগঞ্জ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। উল্লেখ্য বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারী ) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার বাঁশবাড়িয়া পরিজান বেগম মহিলা কওমী মাদ্রাসার ২য় শ্রেণীর শিক্ষার্থী নুরানী আক্তার (১০) ধর্ষণের শিকার হয়।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন..




© All rights reserved 2018 Banglarnayan
Design & Developed BY ThemesBazar.Com